img

*ঈশ্বরদীতে দুই সহোদর ভাইকে বৈদ্যুতিক খুঁটির সাথে বেঁধে চুল কেঁটে দেওয়াসহ শারীরিক নির্যাতন* পুলিশ সুপারের নির্দেশে নির্যাতনকারী গ্রেফতার।

*ঈশ্বরদীতে দুই সহোদর ভাইকে বৈদ্যুতিক খুঁটির সাথে বেঁধে চুল কেঁটে দেওয়াসহ শারীরিক নির্যাতন* পুলিশ সুপারের নির্দেশে নির্যাতনকারী গ্রেফতার । গতকাল ২৯/৪/২০২১ খ্রিস্টাব্দ ১৩.৩০ ঘটিকায় ঈশ্বরদী সাহাপুর ইউনিয়ন আওতাপাড়া নুরজাহান বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে ভিলেজ ফ্রেশ ফুড এন্ড এগ্রো কোম্পানি মালিক জিসান(৩৫), পিতা- মো: রজব আলী গ্রাম -দীঘা, থানা ঈশ্বরদী, জেলা- পাবনা বর্তমান ঠিকানা মশুরিয়া পাড়া, থানা- ঈশ্বরদী তার প্রতিষ্ঠানে ভেজাল মধু সংগ্রহের দায়ে মোঃ আল আমিন(২২) ও তার ভাই ( শিশু বলে নাম দেয়া হলনা) ইউনিয়ন দাশুড়িয়া, থানা- ঈশ্বরদী, জেলা-পাবনাদ্বয়কে প্রতিষ্ঠানের সামনে আলাউদ্দিন বিশ্বাসের মিলের চাতালের বৈদ্যুতিক খুঁটির সাথে বেঁধে শারীরিক নির্যাতন ও চুল কঁটে দিয়ে বিচার করার ঘটনা ঘটেছে। জানা যায়, ভিলেজ ফুড এন্ড এগ্রো নামক প্রতিষ্ঠানটিতে তেল, ডাল, মধুসহ বিভিন্ন পণ্য প্যাকেটজাত করে পাইকারিভাবে বিক্রয় করে থাকে।নির্যাতনের শিকার দুই ভাই পেশায় মধু সংগ্রহকারী এবং তারা প্রায় এক বছর যাবত উক্ত প্রতিষ্ঠানটি মধু বিক্রয় করে আসতেছিল। প্রতিষ্ঠানের মালিকের অভিযোগ প্রথমদিকে তারা দুই ভাই খাঁটি মধু সংগ্রহ করলেও পরবর্তীতে তারা প্রতিষ্ঠানে ভেজাল মধু বিক্রয় করে। বিষয়টি দুই ভাইকে অবগত করলে তারা এর ক্ষতিপূরণ বাবদ গতকাল ১০কেজি মধু প্রতিষ্ঠানটিতে নিয়ে আসে। প্রতিষ্ঠানের মালিক জিসান তাদের দুই ভাইকে একসাথে পেয়ে পূর্বের মধুর সকল টাকা দাবি করেন এবং দুই ভাইকে প্রতিষ্ঠানের সামনে বৈদ্যুতিক খুঁটির সাথে বেঁধে মারপিট করেন এবং মাথায় মধু ঢেলে দিয়ে চুল কেটে দেন। বিষয়টি সমাজের বিভিন্ন শ্রেণীর লোকজনের নজরে আসলে প্রতিষ্ঠানের মালিক ও অন্যান্য লোকজন আল আমিন এবং আলালের অভিভাবকদের ঘটনাস্থলে ডেকে তাদের দুজনকে বুঝিয়ে দেন। উক্ত দুই ভাই অত্যন্ত গরীব ঘরের সন্তান। অন্যের জমিতে ঘর বানিয়ে বসবাস করেন। মা একজন ভিখারি। এই দুই ভাইকে এভাবে বৈদ্যুতিক খুঁটির সাথে বেঁধে শারীরিক নির্যাতন এবং চুল কেঁটে দেওয়ার ঘটনাটি পুলিশ সুপার পাবনা জানতে পেরে অফিসার ইনচার্জ ঈশ্বরদী থানাকে উক্ত বিষয়ে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ প্রদান করেন।তদপ্রেক্ষিতে অনুসন্ধান করে ঘটনার সত্যতা পাওয়ায় নির্যাতনকারী জিসান কে আজ গ্রেফতার করা হয়। এ বিষয়ে মামলা রুজু প্রক্রিয়াধীন।







সর্বশেষ সংবাদ
DIG Homepage